বুধবার, অক্টোবর ২৮, ২০২০ | ১২ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

আরো শক্তিশালী ফর্মুলায় ‘বার্জার ইজি ক্লিন’

বাড়ির চমৎকার ইন্টেরিয়রের জন্য গ্রাহকদের নতুন প্রজন্মের রঙের সমাধান দিতে বার্জার পেইন্টস বাংলাদেশ লিমিটেড নতুন আঙ্গিকে বাজারে নিয়ে এসেছে ‘বার্জার ইজি ক্লিন’। এতে রয়েছে ইঞ্জিনিয়ারড মোডিফাইড পলিয়েস্টার ফাইবার।

ভারতের রিলায়েন্স গ্রুপের সাথে অংশীদারিত্বে উচ্চ মানসম্পন্ন উপকরণ ব্যবহার করে উন্নত সংস্করণে এ পণ্যটি তৈরি করা হয়েছে। রিলায়েন্সের ফ্ল্যাগশিপ ব্র্যান্ড রেক্রনের তৈরি এ প্রক্রিয়ায় কনস্ট্রাকশন অ্যাপ্লিকেশন মজবুত করতে রয়েছে ভার্জিন পলিয়েস্টার এবং পলিপ্রোপিলিন (মনো—ফিলামেন্ট ফাইবার)। বার্জার—রিলায়েন্স গ্রুপের অংশীদারিত্বের ফলে দেশের প্রথম ও একমাত্র প্রতিষ্ঠান হিসেবে বার্জার পেইন্টস বাংলাদেশ লিমিটেড ক্রেতাদের জন্য ইউভি স্পার্কল ক্রস লিঙ্কিন পলিমার, সুপেরিয়র স্ট্রেইন রেজিসট্যান্স, লো ভিওসি, অ্যান্টি—ফাঙ্গাল, ফাস্টার রোলার/ ব্রাশ অ্যাপ্লিকেবিলিটি’র মতো কার্যকর ও উদ্ভাবনী ফিচার নিশ্চিত করবে।
এ রঙের শক্তিশালী উপকরণগুলো অত্যধিক ওয়্যাশাবিলিটি সমৃদ্ধ এবং ঘরের ভেতরের দেয়ালের দাগ পানি কিংবা সাবান পানি দিয়ে সহজেই পরিষ্কার করা যাবে। কঠিন দাগ দূরীকরণে টি৬ থিনার (তারপিন তেল) ব্যবহার করা যেতে পারে।

এ কে এম সাদেক নেওয়াজ, জেনারেল ম্যানেজার – মার্কেটিং, বার্জার পেইন্টস বাংলাদেশ লিমিটেড

এ নিয়ে বার্জার পেইন্টস বাংলাদেশ লিমিটেডের জেনারেল ম্যানেজার (মার্কেটিং) এ কে এম সাদেক নেওয়াজ বলেন, ‘আমাদের ক্রেতা যারা বাড়িতে নান্দনিক ও দীর্ঘস্থায়ী উপাদান ব্যবহার করতে চান, তাদের জন্য আমরা সবসময় উদ্ভাবনী সমাধান নিয়ে আসতে সচেষ্ট। রিলায়েন্স গ্রুপের সাথে এ অংশীদারিত্ব তারই ধারাবাহিকতা স্বরূপ।’
বার্জার ইজি ক্লিন রঙে রয়েছে ইঞ্জিনিয়ারড মোডিফাইড পলিয়েস্টার ফাইবার। এর থ্রি ডাইমেনশনাল ওয়েবড নেটওয়ার্ক দেয়াল ও রঙের বন্ডিং শক্তিশালী করে ওয়্যাশাবিলিটি বাড়ায় বহুগুণে। নতুন বার্জার ইজি ক্লিন প্রচলিত যেকোন ইন্টেরিয়র পেইন্টের চেয়ে জ্যামিতিক হারে পেইন্ট ফিল্মের শক্তি বৃদ্ধি করে। এই ফাইবার, পেইন্ট করার সময় ক্ষুদ্র রোলার হিসেবে কাজ করে যা দ্রুত রোলার বা ব্রাশিং অ্যাপ্লিকেশন নিশ্চিত করার পাশাপাশি কার্যকর রঙ স্পে্রডিং, সুপেরিয়র হাইডিং এবং অতিরিক্ত কাভারেজও নিশ্চিত করে। এর মেকানিক্যাল প্রোপাটির্র কারণে দেয়ালে ফাটল, দাগ ও পেইন্ট ফিল্মের ক্ষয়রোধ করে এবং পানি নিরোধক দক্ষতা কার্যকরীভাবে বৃদ্ধি পায়।
রঙের নির্দিষ্ট এ সংস্করণটি ড্রাম, গ্যালন ও লিটার আকারে (০.৯ লিটার, ৩.৬ লিটার ও ১৮ লিটারে) দেশজুড়ে পাওয়া যাচ্ছে। এ সংস্করণটি কালারব্যাংক ভিত্তিক পণ্য এবং এর ২০০০ এরও বেশি শেড রয়েছে।

সংবাদটি আপনার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন